আমি খুবি সাধারণ মুক্তিকামী একজন মানুষ।

কিন্তু
চারদিকের গাড়িচাপা, পেট্রোল
বোমা আর স্বৈরাচারীদের ঠাসাঠাসির
মধ্যে আমি বাকরুদ্ধ। এই স্বাধীন
বাংলাদেশে স্বাধীনভাবে কথা বলার
অধিকার আমার নেই।
কারণ আমিতো ওদের
পাঁ চাঁটা কুত্তা নই,
তাহলে স্বাধীনভাবে কথা বলবো কিভাবে ???
যদি ওদের
চামচামি করি তাইলে আমার অনেক
দাম আর চামচামি না করে সঠিক
কথা বললে সোজা জেল। সেটা যেই
সরকার-ই আসুক না কেনো।
ক্ষমতা এমন একটা জিনিস, যেইটার
লোভ সামলানো অত্যান্ত কঠিন।
আজকে ২ টা নেত্রী একজন
ক্ষমতা ধরে রাখার চেষ্টায় আর
একজন ক্ষমতা পাবার আশায়
বাংলাদেশের গলায় ফাঁস
দিয়ে দুইজনে দুই দিক
থেকে টানাটানি শুরু করে দিয়েছে। আর
এদের জন্যে এখন বাংলাদেশের
গনতন্ত্র মৃত প্রায়।
আজকে এই দুইটা ডাইনির
জন্যে কতো নিরীহ মানুষের
প্রানহানি হচ্ছে, নিষ্পাপ
শিশুরা পর্যন্ত এদের হাত
থেকে নিস্তার পাচ্ছে না।
আর এরাই নাকি বাংলাদেশের
জনগণের জান-মালের
নিরাপত্তা দেওয়ার
জন্যে নেত্রী হয়েছে !!!
এরা নাকি বাংলাদেশের
জনগণকে ভালোবাসে !!!
আবার নাম-ও দিয়েছে- এক জন
জননেত্রী আরেক জন দেশনেত্রী।
রাজনীতিবিদদের উদ্দেশ্যে বলবো-
আপনারা নিজেরা নিজেরা লড়াই
করে কুত্তার ভাঁগাড়ে পড়ে থাকেন
আর শুয়ারের ভাঁগাড়ে পড়ে থাকেন
সেটা নিয়ে সাধারণ মানুষের কুন্নু
মাথা ব্যাথা নাই, কিন্তু
আপনারা সাধারণ মানুষদের
কে আপনাদের নোংরা রাজনীতির
থেকে মুক্তি দেন প্লিজ।
যেই দল-ই বোমাবাজি করুক, হোক
তাঁরা আওয়ামীলীগ
বা বিএনপি অথবা জামাত-শিবির,
আপনাদের বাড়িতেও তো আপনার
বড় ভাই, ছোট ভাই এবং বাবা আছেন
তাইনা ???
তাদের কেউ যদি কোনো কাজের
জন্যে বাহিরে আসে আর পেট্রোল
বোমার
আঘাতে যদি পুড়ে মরে হস্পিটাল
ঘুরে বাড়ি ফিরতে হয় তাহলে কেমন
লাগবে ???
একটা জিনিস আপনারা মনে রাখবেন
ঘরে যখন চাউল না থাকে, আর
বাচ্চারা যখন ক্ষুধার তাড়নায়
কান্নাকাটি করে তখন বাধ্য হয়েই
বাবাকে তাঁর
অটোরিক্সা টা নিয়ে রাস্তায় বের
হতে হয়।
ঘরে জনগণের লুট
করা কড়কড়ে টাকা তো তাই
আপনাদের এতো ফুটানি আসে,,,
হুমমমমম ???
পুলিশ ভাইদের কে বলবো- বিশেষ
করে আইজিপি একেএম শহীদুল
এবং র্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর
আহাম্মেদ কে-
আপনাদের কে জনগণের টাকায়
জনগণের জান-মালের
নিরাপত্তা দেওয়ার জন্যে পুলিশ
বানানো হয়েছে, কারো দালালি করার
জন্যে নয়।
নিজেদের সম্মান নিজেরা ধরে রাখার
চেষ্টা করেন।
সকলের
উদ্দেশ্যে যেইটা বলবো সেইটা হচ্ছে-
একটা জীবন বাঁচাতে না পারেন কিন্তু
মারার চেষ্টা করবেন না।
মানুষের ভালো না করতে পারেন
কিন্তু ক্ষতি করার চেষ্টা করবেন না।
একটা জিনিস সবসময় মাথায়
রাখবেন- আপনি মারা যাওয়ার পর
মানুষ আপনাকে ভালো না বলুক
অন্তত খারাপ যাতে না বলে,
এইটা যাতে না বলে ”শালা মরছে,
বাঁচা গেল। এখন একটু
শান্তিতে থাকতে পারবো”
0“তোমাদের
কী হলো, তোমরা কি আল্লাহর পথে অসহায়
নর-নারী ও শিশুদের
জন্য লড়বে না, যারা দুর্বলতার
কারণে নির্যাতিতহচ্ছে?তারা ফরিয়াদ
করছে যে, হে আমাদেররব! এইজনপদ
থেকে আমাদের বের করে নিয়ে যাও,
যার অধিবাসীরা জালেম এবং তোমার
পক্ষ থেকে আমাদের কোন বন্ধু,
অভিভাবক
ওসাহায্যকারী তৈরী করে দাও। ” (আল-
কুরআন,সূরা আন-নিসা : ৭৫)

Advertisements
Categories: Uncategorized | Leave a comment

Post navigation

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

Create a free website or blog at WordPress.com.

%d bloggers like this: